বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার উপায় (bikash lon)

বর্তমানে বিকাশ এবং সিটি ব্যাংক ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান চালু হয়েছে সিটি ব্যাংক লিমিটেড। তাই আপনারা যারা বিকাশ থেকে লোন নিতে চাচ্ছেন তারা জানুন বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার উপায় সম্পর্কে।

পাইলট প্রোগ্রাম শেষ করে এবার চালু হয়েছে সিটি ব্যাংক টু বিকাশ লোন সেবা Digital Nano Loan. এই ন্যানো লোন গ্রহণ করে বিকাশ গ্রাহকগণ তাদের বিকাশ একাউন্ট থেকে ৩টি সমান মাসিক কিস্তিতে ঋণ পরিশোধ করতে পারবেন। 

বাংলাদেশ ব্যাংক মোবাইল ডিজিটাল ক্ষুদ্র ঋণ দিতে ১০০ কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন স্কীম গঠন করেছে। এই ঋণ সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ৯% সুদে পাওয়া যাবে। তাছাড়া মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে এই ঋণ প্রদান করা হবে।

মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান গুলো লেনদেন, মার্চেন্ট পেমেন্ট, মোবাইল রিচার্জ সহ আরো বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা থাকলেও ঋণ কার্যক্রম খাতটি ছিলো না।

তবে, সিটি ব্যাংক ও বিকাশের ডিজিটাল ন্যানো লোন কার্যক্রম চালু করার এই খাতটি সম্পূর্ণ হয়েছে। বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার জন্য গ্রহকের কোনো ব্যাংক একাউন্ট খোলার বা থাকার প্রয়োজন নেই।

গ্রহকগণ তার মোবাইলে থাকা বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে ঋণের আবেদন, ঋণ গ্রহণ এবং ঋণ পরিশোধ করতে পারবেন। তাছাড়া এই ঋণের জন্য গ্রহকগণকে কোনো প্রকার জামানত প্রয়োজন হবে না।

সিটি ব্যাংক বিকাশ লোন যারা পাবেন

যদিও সিটি ব্যাংক বিকাশ গ্রহকদের বিকাশ থেকে লোন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে কিন্তু অধিকাংশ গ্রহকগণ এই লোন পাবেন না।

প্রথমত যাদের পুরাতন বিকাশ একাউন্ট রয়েছে অর্থাৎ যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র (NID) দিয়ে কেওয়াইসি (KYC) পূরণ করে বিকাশ একাউন্ট খুলছেন তারা এই bikash lon পাবেন না।

তাছাড়া যারা কেওয়াইসি (KYC) বা বায়োমেট্রিক পদ্ধতির মাধ্যমে ই-কেওয়াইসি (E-KYC) সম্পূর্ণ করেছেন কিন্তু অল্প কিছুদিন বিকাশ একাউন্ট ব্যবহার করছেন তারাও এই লোন পাবেনা না।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী যারা শুধুমাত্র বায়োমেট্রিক পদ্ধতির মাধ্যমে ই-কেওয়াইসি (E-KYC) সম্পূর্ণ করেছেন এবং দীর্ঘদিন বিকাশ একাউন্ট (অ্যাপ) ব্যবহার করছেন তারাই এই লোন পাবেন।

বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার যোগ্যতা

যারা বায়োমেট্রিক পদ্ধতির মাধ্যমে ই-কেওয়াইসি (E-KYC) সম্পূর্ণ করেছেন এবং দীর্ঘদিন বিকাশ একাউন্ট (অ্যাপ) ব্যবহার করে বেশি বেশি লেনদেন করেন তারাই এই লোন পাবার যোগ্য।

বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার উপায় (bikash lon)

বিকাশ লোন নেওয়ার জন্য আপনার মোবাইলে থাকা বিকাশ অ্যাপ থেকে বিকাশ একাউন্ট লগইন করুন। বিকাশ লোন (Loan) আইকনে ক্লিক করুন।

আপনি লোন পাওয়ার যোগ্য হলে একাউন্টের মাধ্যমে যে পরিমান লোন পাবেন তা সংগ্রহ করতে পারবেন। বিকাশ লোন সিস্টেম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহার করে যাচাই করবে আপনি লোন পাবেন কিনা।

যদি লোন পান তাহলে তাদের লোনের টাকা আপনার বিকাশ একাউন্টে যোগ হবে

বিকাশ থেকে লোন কত টাকা পাওয়া যায়?

আপনার বিকাশ একাউন্ট থেকে সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত সিটি ব্যাংকের মাধ্যমে লোন নিতে পারবেন। এই লোনকে বলা হয় ন্যানো লোন। ভবিষ্যতে এই লোনের পরিমান আরো বৃদ্ধি করা হতে পারে।

বিকাশ লোনের সুদের হার ও কিস্তি পরিশোধ করার নিয়ম

বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী বাংলাদেশের যেকোনো ব্যাংকের সুদের হার ৯%। সেই হিসেবে সিটি ব্যাংকের সুদের হারও ৯% প্রযোজ্য।

ঋণ নেওয়ার পরের তিন মাস একই পরিমানের অর্থ সমান তিনটি কিস্তিতে গ্রহকের বিকাশ একাউন্ট থেকে নিদিষ্ট তারিখে কর্তন করা হবে।

নিদিষ্ট তারিখে কিস্তি কর্তনের পূর্বে গ্রহক এসএমএস এবং অ্যাপের মাধ্যমে নোটিফিকেশন পাবেন। গ্রহকগণ নিদিষ্ট তারিখের আগে তার বিকাশ একাউন্টে কিস্তির পরিমান ব্যালেন্স রাখবেন।

গ্রহকগণ নিদিষ্ট সময়ে ঋণ পরিশোধ করছে কিনা সেটা পর্যবেক্ষণ করা হবে এবং পরবর্তী সময় ঋণ প্রদানের ক্ষেত্রে এই ব্যাপারটি বিবেচনা করা হবে।

সিটি ব্যাংক বিকাশ ঋণ আবেদন অনলাইন

সিটি ব্যাংক বিকাশ লোন বা ঋণ আবেদন আপনি বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে করতে পারবেন। আপনার  বিকাশ অ্যাপে একাউন্ট লগইন করুন। তারপর Loan আইকনে ক্লিক করে লোনের জন্য অনুরোধ করুন। 

বিকাশ লোন পরিশোধ না করলে কি হবে?

বিকাশ লোন গ্রহণ করার পরে যদি আপনি লোন পরিশোধ না করেন তাহলে আপনার তথ্য বাংলাদেশ ব্যাংকে রির্পোট করা হবে।

তাছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রবিধান অনুযায়ী সিটি ব্যাংক আপনার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

শেষ কথা

আজকে আমরা জানলাম বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার উপায় বা সিটি ব্যাংক বিকাশ ঋণ আবেদন অনলাইন সম্পর্কে। এই বিষয় কোনো প্রশ্ন বা পরামর্শ থাকলে কমেন্ট করে জানাবেন এবং ভালো লাগলে শেয়ার করবেন।

FAQ (প্রশ্ন উত্তর)

বিকাশ থেকে লোন নেয় কিভাবে?

বিকাশ থেকে লোন নেওয়ার জন্য প্রথমে আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে কেওয়াইসি পূরণ করতে হবে। এরপর বিকাশ অ্যাপে প্রবেশ করে “লোন” অপশনে ক্লিক করুন। আপনার একাউন্টস লোন পাওয়ার যোগ্যতা থাকলে লোনের পরিমান দেখতে পাবেন। এরপর ট্যাপ করলে লোনের টাকা বিকাশ একাউন্টে যোগ হবে।

Similar Posts

16 Comments

  1. ভাই আমার অনেক সমস্যা আমাকে যদি কিছু টাকা সাহায্য করতে আমার অনেক উপকার হত প্লিজ ভাই আমাকে কিছু টাকা সাহায্য করুন এটা আমার বিকাশ নাম্বার 01763848132

  2. ভাই আমার বিকাশো লোন লাগবে ৫০ পনচাশ হাজার টাকা জরুরি বিকাশ পারসোনাল 01719779199

    1. আপনি বিকাশ অ্যাপে প্রবেশ করে এনআইডি কার্ড দিয়ে তথ্য আপডেট বা হালনাগাদ করে “লোন” অপশনে ক্লিক করে দেখতে পারবেন কত টাকা লোন পাওয়ার যোগ্য আপনি।

  3. ভাই আমার বিকাশো লোন লাগবে ৫০ পনচাশ হাজার টাকা জরুরি 01719779199

    1. আপনি বিকাশ অ্যাপে প্রবেশ করে এনআইডি কার্ড দিয়ে তথ্য আপডেট বা হালনাগাদ করে “লোন” অপশনে ক্লিক করে দেখতে পারবেন কত টাকা লোন পাওয়ার যোগ্য আপনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *