সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট ২০২৪

আপনারা যারা বাংলাদেশ সরকারের সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন তাদেরকে আজকে বলবো সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট কোনটি বা ওয়েবসাইটের লিংক এবং প্যাকেজ/স্কিমসমূহ।

বাংলাদেশে প্রথম বারের মতো সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করা হয়েছে। এই স্কিমে দেশের সরকারি চাকরিজীবী ছাড়াও সাধারণ নাগরিকগণ অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন। আপনার বয়স ১৮ বছরের বেশি হলে আপনি অনলাইনে নিবন্ধন করতে পারবেন।

আপনারা যারা সরকারি চাকরি করেন তাদের জন্য এই স্কিম না। কারণ তারা পেনশন পান। কিন্তু যারা চাকরি করেন না তারা তারা তো পেনশন পান না। তাই চাকরিজীবীদের বাহিরের জনগোষ্ঠীর জন্য এই ব্যবস্থা।

সরকারি তথ্য অনুযায়ী সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট চালু হওয়ার পর থেকে একসাথে প্রায় ১২০০-১৩০০ মানুষ এই ওয়েবসাইট ভিজিট করছে। কিন্তু অনেক আবার জানতে চাচ্ছেন সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট কোনটি বা ওয়েবসাইট ভিজিট করার লিংক।

সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট লিংক

আপনারা যারা জানতে চাচ্ছেন বাংলাদেশ সরকারের সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট কোনটি তাদের সুবিধা জন্য ওয়েবসাইট লিংক প্রদান করা হয়েছে। ওয়েবসাইট – https://www.upension.gov.bd

সর্বজনীন পেনশন প্যাকেজ বা স্কিমসমূহ

সর্বজনীন পেনশনের (৪) চারটি প্যাকেজ বা স্কিম রয়েছে। এই স্কিমসমূহ হলোঃ

  • প্রবাস – প্রবাসী বাংলাদেশী যারা দের বাহিরে থাকেন।
  • প্রগতি – বেসরকারি কর্মচারী বা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বা কর্মী।
  • সুরক্ষা – স্বকর্ম ও অ-প্রাৃতিষ্ঠানিক কর্মী।
  • সমতা – স্বল্প আয়ের ব্যাক্তিরা।

সর্বজনীন পেনশন রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম

Universal pension ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর পেনশন রেজিষ্ট্রেশন অপশনে ক্লিক করলে একটি প্রত্যয়ন পাতা দেখতে পাবেন। প্রত্যয়ন পাতা ভালোভাবে পড়ে “আমি সম্মাত আছি” অপশনে ক্লিক করুন।

এরপর রেজিষ্ট্রেশন করার অপশন দেখতে পাবেন। এথানে আবেদনকারীকে প্রথমে প্যাকেজ/স্কিম নির্বাচন করতে হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ১০,১৩,১৭ সংখ্যার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, জন্মতারিখ, মোবাইল নম্বর, ইমেইল যুক্ত করে নিচের ক্যাপচা পূরণ করুন।

সঠিকভাবে ক্যাপচা পূরণ করার পরে আপনার প্রদান করা ইমেইল নম্বরে এবং মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি আসবে। পরবর্তী ফরমে ওটিপি ব্যবহার করবেন।

এবার আপনার ব্যাক্তিগত তথ্য দিতে হবে। জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী স্বয়ংক্রিয়ভাবে আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর, ছবি, নাম বাংলা ও ইংরেজিতে, পিতা-মাতার নাম এবং বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা দেখাবে।

এরপর আবেদনকারীর বার্ষিক আয়ের পরিমান উল্লেখ করে নিজের পেশা, বিভাগ, জেলা, উপজেলা সিলেক্ট করতে হবে। এরপর স্কিম তথ্য নামে একটি পেজ আসবে। এখানে মাসিক চাঁদার পরিমান এবং চাঁদার পরিমানের সময় বেচে নিতে হবে। চাঁদার পরিমানের সময় মাসিক, ত্রৈমাসিক ও বাষিক।

এরপর আবেদনকারীর ব্যাংক একাউন্ট নাম্বার, ব্যাংকের নাম এবং শাখার নাম উল্লেখ করতে হবে। সাথে নমিনির মোবাইল নাম্বার সম্পর্ক উল্লেখ করতে হবে। শেষে সকল তথ্য ভালোভাবে দেখে রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া শেষ করুন।

শেষ কথা

আজকে আমরা জানলাম সর্বজনীন পেনশন ওয়েবসাইট লিংক কোনটি বা জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ ওয়েবসাইট কোনটি। এই সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন জানার থাকলে নিচের কমেন্টে লিখে জানাবেন।

FAQ (প্রশ্ন ও উত্তর)

জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ ওয়েবসাইট কোনটি?

জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষ ওয়েবসাইট https://www.upension.gov.bd

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *